আমার সম্পর্কে

Grow With Nahid

“আজ আমার বিজনেস যতটুকু গ্রো করেছে, তার ৮০ ভাগ অবদান আপনার এই ব্লগটির”
– আল আমিন

এরকম কথা আমাকে অনুপ্রানিত করে। তবে রিয়েলিটি হচ্ছে, যারা সফল হচ্ছেন তারা একশন নিচ্ছেন।

আমি নাহিদ হাসান, পেশাগত ভাবে আমি একজন ইন্টারনেট মার্কেটার এবং উদ্যোক্তা। ঘুড়তে এবং আড্ডা দিতে পছন্দ করি। আমি কিছুটা সেকেলে তাই এই যান্ত্রিক জীবনেও আমি আমার পরিবার, বন্ধু, আত্নীয় স্বজন এবং কাছের মানুষদের নিয়ে একসাথে মিলে মিশে থাকার মধ্যেই আনন্দ খুজে পাই।

আমার বিশ্বাসঃ

একজন ভাল মানুষ হতে পারাটাই হচ্ছে পৃথিবীর সবচাইতে বড় সফলতা।

Bizcope (পূর্বে Outsource BD) নামে আমার একটি ক্ষুদ্র অনলাইন মার্কেটিং প্রতিষ্ঠান রয়েছে। ২০১০ সালে প্রথমে ভার্চুয়ালি আমাদের যাত্রা শুরু হয়। তারপর গুটি গুটি পায়ে, ভুল এবং ভুল সংসোধন করতে করতে ২২ জনের একটি ছোট পরিবার তৈরি হয়ে গিয়েছে।

এছাড়াও বর্তমানে গ্লোবাল ফিনটেক প্রতিষ্ঠান পেয়নিয়ারের সাথে কাজ করছি তাদের “হেড অফ বিজনেস ডেভেলপমেন্ট” হিসেবে। কন্সাল্টেন্ট হিসেবে দেশের সবচাইতে পপুলার ইকমার্স প্রতিষ্ঠান রকমারির সাথে কাজ করছি।

একজন রিসোর্স পার্সন হিসেবে কালের কন্ঠ, ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভি, মাছরাঙ্গা টেলিভিশন সহ আরো অনেক প্রিন্ট এবং টিভি মিডিয়াতে ফিচার হয়েছি একাধিক বার। কি-নোট স্পিকার হিসেবে কথা বলেছি ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড, বেসিস সফট এক্সপো, বিজনেস ইনোভেশন সামিট সহ অনেক বড় বড় ইভেন্টে।

নতুনদের দিক নির্দেশনা দিতে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি, নর্দান ইউনিভার্সিটি সহ আরো বেশ কিছু ইউনিভার্সিটিতে আমার অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছি রিসোর্স পার্সন হিসেবে।

আমি কি করি

আমি ব্যাক্তিগত ভাবে এসইও এবং ডিজিটাল মার্কেটিং কন্সালটেন্সি করে থাকি, তবে আমার প্রতিষ্ঠান পুরো সার্ভিসটি দিয়ে থাকে। এছাড়াও আমাদের একটা কন্টেন্ট হাব রয়েছে। আমরা প্রতি বছর প্রায় গড়ে ৬০০০ আর্টিকেল তৈরি করেছি যার একটা অংশ আমাদের মার্কেটিং টিমের জন্য। বাকি অংশ আমরা সরাসরি ক্লায়েন্টদের নিকট সেল করি। এছাড়াও আমরা নতুন প্রফেশনালদের নিয়ে আরো একটি এসইও এবং ডিজিটাল মার্কেটিং হাব করতে চাচ্ছি যারা মোটামুটি কাজ জানে কিন্তু কাজ পাচ্ছে না।

কেন এই ব্লগ

বাংলাদেশের হাতে গোনা কিছু মানুষ আছেন যারা তাদের অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন যাতে নতুনরা দিক নির্দেশনা পায়। অথচ বাংলাদেশে অনেক অনেক হাইলি স্কিল্ড প্রফেশনাল রয়েছেন। আমি আসলে এই ট্রেন্ডটা ভাঙতে চাচ্ছি। গত ৮+ বছর ধরে অনেক কাজ করেছি, অনেক ভুল করেছি, অনেক শিখেছি। আমি চাই আমার এই অভিজ্ঞতা নতুন এবং ইন্টারমিডিয়েট প্রফেশনালদের কাজে লাগুক। এর আগে বাংলা ব্লগিং শুরু করেও লেখা ছেড়ে দিয়েছিলাম। এর পেছনের কারন ছিল মানুষের কপি করার প্রবনতা। অনেকেই আমার লেখা হুবুহু তাদের ব্লগে পোষ্ট করেন নিজের নামে। তখন একটু খারাপ লাগতো, এবং এই খারাপ লাগা থেকেই বাংলা কন্টেন্ট তৈরি করা বন্ধ করে দিয়েছিলাম। পরবর্তিতে উপলব্ধি করলাম, আমরা যদি বাংলা কন্টেন্ট তৈরি না করি তাহলে কে তৈরি করবে! এই উপলব্ধি থেকেই আবার লিখা শুরু করা।

এই ব্লগ কিভাবে আপনাকে সাহায্য করবে

মার্টিন কুপার অনেক পরিশ্রম করে মোবাইল আবিস্কার করেছেন, তারপর আরেকটা গ্রুপ নানা প্রযুক্তি ব্যবহার করে মোবাইল এর ফাংশনালিটি বৃদ্ধি করছে। এটাই নিয়ম। পৃথিবী যদি মোবাইল আবিষ্কার নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতো, কেউ যদি মোবাইলের ফাংশনালিটি বৃদ্ধির জন্য কাজ না করতো তাহলে কেমন হতো? অন্যভাবে বললে প্রযুক্তিবিদরা যদি মোবাইল কিভাবে কাজ করে না জানতো এবং প্রযুক্তি ব্যবহার করে মোবাইলের উন্নতি ঘটাতে না পারতো তাহলে কেমন হতো? আমাদের কর্মক্ষেত্রটাও অনেকটা একই রকম। একজন প্রফেশনাল হিসেবে আমি হয়ত অনেক সমস্যার সমুক্ষীন হয়েছি, সম্ভবত আপনার কর্মক্ষেত্রেও আপনি একই সমস্যার সমুক্ষীন হবেন। আমি অনেক সময় ব্যয় করে তার একটা সলিউশন বের করলাম। এখন আপনি যদি আমার অভিজ্ঞতাটা জানেন, তাহলে হয়ত সহজেই সেই সলিউশনটা ইমপ্লিমেন্ট করতে পারবেন। নয়তো আপনারও অনেক সময় নষ্ট করে সলিউশন বের করতে হবে। আপনি হয় অভিজ্ঞতা কিনবেন অথবা ধার করবেন। অভিজ্ঞতা ধার করা মানে অন্যের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানো। আর অভিজ্ঞতা কেনা মানে নিজে নিজে চেষ্টা করে সমাধান বের করা। এই ব্লগ থেকে আপনি ফ্রী তে অভিজ্ঞতা ধার করতে পারবেন, যাতে আপনার সময় এবং টাকা দুইটাই বেচে যায়, আর আমরা সম্মিলিত ভাবে সফল হতে পারি।

এই ব্লগ থেকে আপনারা কোন কোন বিষয় সম্পর্কে নলেজ ডেভেলপ করতে পারবেন?

  • এসইও
  • কন্টেন্ট মার্কেটিং
  • ডিজিটাল মিডিয়া মার্কেটিং
  • টিম বিল্ডিং
  • প্রোডাক্টিভিটি হ্যাক
  • বিজনেস স্কীল
  • এফিলিয়েট মার্কেটিং
  • সেলস স্কিল