fbpx

লিংক শর্টনারের সুবিধা অসুবিধা

পৃথিবীতে দুই ধরনের মানুষ আছে,

১) যারা Link Shortener ব্যাবহার করে

২) যারা Link Shortener ব্যাবহার করে না।

আপনি যদি প্রথম দলের হয়ে থাকেন তাহলে আপনি Link Shortener শব্দটার সাথেও পরিচিত, এর ব্যাবহার সম্পর্কেও পরিচিত। আমরা সবাই কম বেশি Link Shortener ব্যাবহার করে থাকি, আর আমাদের মধ্যে অনেকেরই হয়ত টুইটার ব্যাবহার করার সময় থেকে এটার প্রয়জনিয়তা উপলব্ধি করতে পেরেছিলাম। ফেসবুকেও আমরা এখন সর্ট লিঙ্ক ব্যাবহার করে থাকি নিরুপায় হয়। হাইপার লিঙ্ক যে করা যায় না 🙁 

তবে আমাদের মধ্যে অনেকেই bit.ly অথবা সিমিলার কোন সাইটে যাই শর্ট লিঙ্ক ক্রিয়েট করি, আর শেয়ার করি। কখনো এর ডাটা এনালাইসিস করি না, এমনকি অনেকে জানিইনা যে এর ক্লিক রিলেটেড ডাটা গুলা আমাদের জন্য স্টোর করা থাকে। আমরা সেখান থেকে ট্রাক করতে পারি কতজন ক্লিক করেছে, তাদের সোর্স, তাদের কান্ট্রি ইত্যাদি। একজন মার্কেটারের জন্য এই ডাটা কিন্তু খুবই গুরুত্বপুর্ন। এই ডাটা গুলা ট্রাক করার জন্য শুধুমাত্র তাদের সার্ভিস আমাদের একাউন্ট খুলে ব্যাবহার করতে হবে 🙂 এবং ইহা ফ্রী 😀 😀 

শর্ট লিংক  কি এসইও তে কোন প্রভাব বিস্তার করে?

এটা ডিপেন্ড করবে রিডিরেক্টের উপর। যদি ৩০১  রিডিরেক্ট হয় তাহলে কোন সমস্যা নেই। ব্যাবহার করা যাবে এবং এসইও তে কোন সমস্যা হবার কথা না।

URL শর্টেনিং এর কিছু সমস্যাঃ

যেহেতু আমরা থার্ড পার্টির কোন টুল ব্যাবহার করে URL জেনারেট করছি, তারমানে কখনো যদি সেই সার্ভিস অফ হয়ে যায়, তাহলে অনেকগুলা ব্রকেন লিঙ্ক তৈরী হবে। যা রেফারেল ট্রাফিক কমিয়ে দিবে।

যেহেতু লিঙ্কটি রিডেরক্ট হয় তারমানে ভিসিটরের পয়েন্ট অফ ভিউ থেকে এটা বিরক্তিকর। এছাড়াও পেইজ লোড হতে সময় বেশি লাগে রিডিরেক্টের কারনে।

আর সবচাইতে বড়যে সমস্যাটা হয় তা হচ্ছে স্পামাররা খুব সহজেই শর্ট URL এর সুবিধা নিতে পারছে, কেননা লিঙ্ক ক্লিক করার আগে আমরা আইডেন্টিফাই করতে পারছিনা এটা কোন ডোমেইনে যাচ্ছে।

URL শর্টেনিং এর কিছু সুবিধাঃ

লিং শর্টেনিং এর কিছু সুবিধাও রয়েছে

  • ইমেইল সেন্ড করার সময় প্রায়ই দেখা যায় লম্বা URL গুলা ব্রেকডাউন করে। শর্ট URL ব্যাবহার করে এটা এভয়েড করা যায়।
  • সোস্যাল মিডিয়াতে যেহেতু হাইপারলিঙ্ক করা যায় না, তাই সোস্যাল মিডিয়াতে লিঙ্ক শেয়ার করার জন্য শর্ট লিঙ্ক ভাল অপশন।
  • এছাড়াও প্রিন্টিং মেটেরিয়ালেও শর্ট লিঙ্ক ব্যাবহার করা যায়, এতে মানুষ সহজেই সেই লিঙ্কটিকে ব্রাউসারে টাইপ করে সাইট ভিজিট করতে পারে।
  • তুলনা মুলক ভাবে সহজে মনে রাখা যায় (ডিপ পেইজের URL গুলার ক্ষেত্রে)।

কিছু লিংক শর্টনারের নামঃ

  • Bitly
  • TinyURL
  • Google’s URL Shortner
  • Ow.ly
  • Yourls
  • Fur.ly
  • Dyinglinks
  • Bag.gy
  • J.mp

লিঙ্ক শর্টনারের কিছু মজার ট্রিক্স নিয়ে একটা আর্টিকেল লিখছি আমার মুল ব্লগে। আমি যেহেতু বাংলা ব্লগিং কমিয়ে দিয়েছি, তাই আপনারা চাইলে আমার পার্সনাল ব্লগের ইংরেজী ভার্ষনটাতে চোখ বুলিয়ে নিতে পারেন, গত দুই মাসে বেশ কিছু পোষ্ট লিখেছি, যা অবশ্যই আপনার কর্মক্ষেত্রে ভ্যালু এড করবে।
এছাড়াও আমার ফেসবুক পেইজে কানেক্টেড থাকতে পারেন, পিন পোষ্টে আশা করি সবসময় কিছু ফ্রী গিফট রেডি থাকবে আপনার জন্য 🙂