fbpx

The Feel, Felt, Found Strategy

ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে আপনারা অনেকেই হয়ত ডিপ্রেসড থাকেন, কিভাবে শুরু করবেন। আবার ক্যারিয়ারের মাঝপথেও অনেকেই স্ট্রেসের মধ্যে থাকেন, কিভাবে আরো নতুন ক্লায়েন্ট ম্যানেজ করা যায়। কিভাবে টিমকে ইফেক্টিভলি হ্যান্ডেল করা যায়। আবার যারা এমাজন নিয়ে কাজ করছেন, তারাও স্ট্রেস ফিল করেন, কিভাবে ভাল কন্টেন্ট পাওয়া যায়, কিভাবে কনভার্শন বাড়ানো যায়, অথবা কিভাবে আরো ভাল নিশ বের করা যায়।

আমি যখন শুরু করেছিলাম তখন আমিও ঠিক একই রকম সমস্যার সম্মুখীন হয়েছি এবং একই স্ট্রেসের মধ্যে দিয়ে গিয়েছি। তারপর অনেক ভুল করেছি আর শিখেছি। এটাও সত্যি আমার অবস্থা হয়তো আপনার চেয়েও খারাপ ছিল, কেননা আপনি এখন ইন্টারনেটে যত রিসোর্স পাচ্ছেন, অথবা কমিউনিটিতে সাজেশন পাচ্ছেন, আমি সেটা পাইনি। তবে ভুল করেছি আর শিখেছি, সুতরাং আমার পথচলা অনেকটা লার্নিং কার্ভের মতো ছিল এবং আমি এভাবে এখনো শিখছি। শুধু আমি নই, আমরা সেই সময়ে অথবা তারো আগে যারা শুরু করেছি সবার অভিজ্ঞতাই একইরকম।

তবে প্রায় তিন বছর আগে আমি “Brian Tracy” এর একটা বই কিনেছিলাম যা পড়ার পর আমার বিজনেস এবং ক্যারিয়ার সম্পর্কে ধারনা পালটে গিয়েছিল। এই বইটাকে আমি আমার কেরিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট গুলার মধ্যে একটা ধরে থাকি। তারপর থেকে আমি তার অনেকগুলো বই / অডিও বই এবং কোর্স করেছি। কিছু কোর্স এক্সপেনসিভ ছিল, তবে সেগুলো আমার বিজনেস ক্যারিয়ারে অনেক ভ্যালু এড করেছে। অনেক বড় বড় প্রফেশনালের পছন্দের অথরের লিস্টে আছেন এই ব্রায়ান ট্রেসি। আপনারাও ট্রাই করে দেখতে পারেন। হয়তো আপনার আপনার ক্যারিয়ার/ বিজনেস সম্পর্কে ধারনাই পালটে যাবে।

আমার উপরের লেখার এই প্যাটার্নটিকে বলা হয় ফিল – ফেল্ট – ফাউন্ড পেটার্ন।

এশিয়ান স্কাই শপ এই ধরনের কন্টেন্ট বেশি তৈরি করে থাকেন। শুধু তারা না, বেশির ভাগ সেলস পেইজেও এই প্যাটার্নটি ফলো করে কন্টেন্ট তৈরি করে। এফিলিয়েট মার্কেটাররাও এই প্যাটার্নটি অনুসরণ করে। এই প্যাটার্নের প্রধান পয়েন্টটি হচ্ছে একটা সমস্যাকে হাইলাইট করা। তারপর ভিজিটরকে জানানো যে একই রকম সমস্যা আমি সহ আরো অনেকেই ফেস করেছে এবং তারপর কিভাবে সেই সমস্যার একটা ইফেক্টিভ সমাধান বের করা গিয়েছে।

আপনি যখন ভিজিটরকে বললেন যে আপনিও একই ধরণের সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন, তখন তারা এই ভেবে আশ্বস্ত হয় যে সমস্যাটি শুধু তাদের জন্যই নয় বরং অনেকেই সম্মুখীন হচ্ছেন। তখন আপনার লেখার উপরভিজিটরের ফোকাস বেড়ে যায় । সমস্যা বাতলিয়ে যখন আপনি তার সমাধান দেখাবেন, তখন ভিজিটর একইভাবে চিন্তা করবেন। যেহেতু আপনি অথবা আরো অনেকেই এইভাবে সমাধান পেয়েছে, তার অর্থ সেও একইভাবে সমাধান বের করতে পারবে।

নোটঃ অতীতে হয়তো শুধু এই প্যাটার্নটি ফলো করে ভ্যালু এড না করে কন্টেন্ট তৈরি করলেই সেল পাওয়া যেতো, কিন্তু বর্তমানে শুধু প্যাটার্ন ফলো করলেই হয় না। ভাল কনভার্শন পাওয়ার জন্য লেখাকে আরও বেশি তথ্যসমৃদ্ধ এবং সুখপাঠ্য করতে হয় ।

এই প্যাটার্ন সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থাকলে আমার ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করতে পারেন, যেখানে আপনার জিজ্ঞাসার উত্তর  ছাড়াও এধরণের আরও অনেক দরকারি টিপস শেয়ার করা হবে।

এছাড়াও আমার ইভেন্ট পেইজে একটু ঘুরে আসতে পারেন, যাতে আমার আপকামিং ইভেন্টে ফ্রী অংশগ্রহন করতে পারেন।